1. admin@durantoprokash.com : admin :
মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শৈলকুপায় একা মাদ্রাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা সভাপতি ও ক্যাশিয়ারের বিরুদ্ধে বেতন ভাতা আটকে রাখার অভিযোগ সাংবাদিক রঘুনাথ খাঁর মুক্তির দাবিতে ঝিনাইদহে মানববন্ধন আর্জেন্টিনাকে উড়িয়ে টানা দ্বিতীয় জয় ব্রাজিলের কালীগঞ্জে ভিডব্লিউবি কার্ড বিতরণ ও প্রায় ১৯ কোটি টাকার রাস্তার মেরামত কাজের উদ্বোধন হিরো আলমের প্রতীক ‘একতারা’ প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন আর হবে না জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা ট্রাকের ধাক্কায় ভাঙলো ওয়াজ মাহফিলের গেট কুপিয়ে জখম করা হলো কলেজ ছাত্রকে গাজীপুরের কালীগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী জামাই মেলায় মানুষের ঢল ভেজাল বীজে ক্ষতিগ্রস্ত শৈলকুপার পেঁয়াজ চাষিদের বিক্ষোভ
আইনজীবীদের সাথে মোহাম্মদ খায়রুজ্জামান (ছবি ফ্রি মালয়েশিয়া টুডের সৌজন্যে)

মালয়েশিয়ায় আটক সাবেক হাইকমিশনার খায়রুজ্জামান মুক্ত

মালয়েশিয়ায় আটক বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত মেজর (অব.) মোহাম্মদ খায়রুজ্জামানকে (৭০) মুক্তি দেওয়া হয়েছে। মুক্ত হওয়ার পর স্ত্রীকে ফোন করে বিষয়টি জানিয়েছেন খায়রুজ্জামান। আজ বুধবার ফ্রি মালয়েশিয়া read more

ভারতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ শেখ ফজলুল হক মনির ৮৩ তম জন্মদিন উদযাপন

উপমহাদেশের প্রখ্যাত ও সর্ববৃহৎ যুব সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ শেখ ফজলুল হক মনির ৮৩তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ৪ঠা ডিসেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ভারত শাখা read more

ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’ এর প্রভাব বাংলাদেশে,আবহাওয়া অধিদপ্তরের সতর্ক সংকেত

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’ ৮০০ কিলোমিটারের বেশি দূরে থাকলেও এর অগ্রবর্তী অংশের প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশে। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘ (বজ্র মেঘ) সৃষ্টি হচ্ছে। read more

ডিসেম্বরে শুরুতেই ভারতের পূর্বাঞ্চলে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় “জাওয়াদ”

ডিসেম্বরের শুরুতেই ভারতের পূর্বাঞ্চলে আঘাত হানতে পারে ‘শক্তিশালী’ ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ। আগামী শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকালের দিকে অন্ধ্রপ্রদেশের উত্তর ও ওড়িশার দক্ষিণ উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে read more

আফগানিস্তান নিয়ে ভারত কেন চিন্তিত

কয়েক সপ্তাহ আগে শুরু হওয়া তালেবানের আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের প্রক্রিয়া এখন প্রায় সম্পূর্ণ। যাঁরা যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে ২০ বছর ধরে একটি গণতান্ত্রিক আফগানিস্তানের জন্য কাজ করেছেন, তাঁরা read more

আফগান সরকারকে দায়ী করে পালালেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর

আফগানিস্তান ছেড়ে পালিয়েছেন দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর আজমল আহমাদে। দেশটির সাম্প্রতিক পরিস্থিতির জন্য আশরাফ গনি সরকারকে দায়ী করেছেন তিনি। রোববার তালেবান কাবুল দখলের দিনই আফগানিস্তান read more
পুরাতন খবর
মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ঝিনাইদহে শুরু হয়েছে ৩ দিন ব্যাপী বিহঙ্গ নাট্য উৎসব। বিহঙ্গ ঝিনাইদহ’র আয়োজনে রোববার বিকেলে এ উপলক্ষে জেলা শিল্পকলা একাডেমী চত্বর থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে গিয়ে শেষ read more
ফরিদপুরে শত কোটি টাকা মূল্যের বিরল প্রজাতির তক্ষক উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গার তিতুরকান্দি নামক এলাকা থেকে ওই তক্ষকটি উদ্ধার করা হয়। পরে বৃহস্পতিবার ( ৮ জুলাই ) আলফাডাঙ্গা উপজেলা বন কর্মকর্তা শেখ লিটন, পৌর মেয়র সাইফুর রহমান সাইফারসহ স্থানীয় read more

স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপোতে ২৫% ছাড়ে থিফগার্ড

ক্রেতাদের জন্য আবারও বিশেষ চমক এনেছে মোবাইল সুরক্ষাকারী এ্যাপ ‘থিফগার্ড’। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কেন্দ্রে ৬-৮ জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিতব্য স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো থেকে থিফগার্ড এ্যাপটি ইন্সটল করলেই read more

৯৮ ফুট দীর্ঘ ডাইনোসর নিয়ে বিস্মিত বিজ্ঞানীরা!

ডাইনোসরদের বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে বহুদিন ধরেই কাজ করছেন গবেষকেরা। একসময় তারাই দাপিয়ে বেড়াত এই পৃথিবীর বুকে। মানুষ আসার ঢের আগে তাদের সেই পদচারণার read more

বিভাগীয় খবর

হেফাজতের মহাসচিব নুরুল ইসলাম আর নেই

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। সোমবার (২৯ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। হাসপাতালে read more

ঝিনাইদহের মহেশপুরে অসুস্থ বাবার সামনে এক তরুণকে নিজের মুখে জুতার বাড়ি দিতে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো. আরিফুজ্জামান বিপাসের পা ধরেও ক্ষমা চাইতে হয়েছে ওই তরুণকে। এই দৃশ্য দেখে হতবাক হয়ে পড়েন হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অসুস্থ পিতা গিয়াস উদ্দিন সরকার। গত ৮ ডিসেম্বর মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন গিয়াস উদ্দিন (৬২)। ছাত্রলীগ সভাপতির প্ররোচনায় নিজের ছেলে মুখে জুতার বাড়ি মারতে দেখে আরো অসুস্থবোধ করেন গিয়াস উদ্দিন। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার বিকেলে তাঁর মৃত্যু হয়। ভুক্তভোগী ওই তরুণের নাম এস এম সরকার ওরফে হোসেন সরকার। তিনিও ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তাঁদের বাড়ি মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর গ্রামে। মুখে জুতা মারার ঘটনার পর দুঃখ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এস এম সরকার লিখেছিলেন, ‘মানুষ কখন আত্মহত্যা করে?’। এদিকে দুঃসহ স্মৃতি নিয়ে পিতার মৃত্যুর পর তিনি কথা বলার ভাষাও হারিয়ে ফেলেছেন। শুধু বলছেন, ‘ওরা আমাকে জুতা মারতে বাধ্য করার কারণে অসুস্থ বাবা খুব কষ্ট পেয়েছেন, যে কারণে তাঁকে বাঁচানো গেল না।’ জুতা মারার ঘটনা সরাসরি অস্বীকার করেননি ছাত্রলীগ নেতা আরিফুজ্জামান। তবে ঘটনা নিয়ে তাঁর ভাষ্য, তাঁরা ওই কর্মীর অসুস্থ বাবাকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলেন। এ সময় এস এম সরকার দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘এত দিন আপনাদের সঙ্গে বিরোধ করে এসেছি, অথচ আপনারা আমার বাবাকে দেখতে এসেছেন। আমি এতদিন ভুল করেছি, এর জন্য ক্ষমা চাচ্ছি।’ ছাত্রলীগ নেতা আরও দাবি করেন, ওই কর্মী নিজেই তাঁকে জুতা দিয়ে মারতে বলেন। তখন তিনি নিজে না মেরে পা থেকে জুতা খুলে এগিয়ে দেন। তখন তিনি নিজেই জুতা মারেন। এস এম সরকারের ভগ্নিপতি মোমিনুর রহমান বলেন, এস এম সরকার ছাত্রলীগ করেন। মাঝে কিছুদিন ঢাকায় ছিলেন। অল্প দিন হলো বাড়িতে এসেছেন। তিনি ছাত্রলীগের একটি গ্রæপের বিপক্ষে ছিলেন। দুই পক্ষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিয়ে লেখালেখি করে। এই লেখালেখি নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুজ্জামান ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন। মোমিনুর রহমান বলেন, তাঁর শ্বশুর গিয়াস উদ্দিন সরকার ৭ ডিসেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন এবং কিছুটা সুস্থতার দিকে যাচ্ছিলেন। হাসপাতালে বাবার পাশে ছিলেন ছেলে এস এম সরকার। সেখানে তাঁর মা মোছা. খাদিজা খাতুনও উপস্থিত ছিলেন। এক দিন পর ৮ ডিসেম্বর রাতে ছাত্রলীগ নেতা আরিফুজ্জামান বিপাস তার অনুসারী নিয়ে সেখানে যান। তাঁরা এস এম সরকারকে পেয়ে অসুস্থ বাবা ও পাশে থাকা মায়ের সামনেই তাঁর ওপর চড়াও হন। ফেসবুকে নানা কথা লেখার প্রসঙ্গ তুলে চাপ সৃষ্টি করেন। এ সময় এস এম সরকার তাঁদের আক্রমণাত্মক পরিস্থিতি দেখে ক্ষমা চান। একপর্যায়ে পায়ে ধরেও ক্ষমা ভিক্ষা চান। এরপরও ছাত্রলীগ সভাপতি নিজের পায়ের জুতা খুলে এগিয়ে দেন। হুকুম দেন নিজের মুখে জুতার বাড়ি মারতে। উপায় না দেখে এস এম সরকার নিজের মুখে জুতা দিয়ে বাড়ি মারেন। মোমিনুর রহমান বলেন, এই ঘটনার পর তাঁর শ্বশুর মানসিক কষ্টে আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁরা কাছে গেলে শুধু প্রশ্ন করতে থাকেন, কেন ছেলেকে দিয়ে নিজের মুখে জুতার বাড়ি দেওয়ানো হলো। তাঁর ছেলে কী অপরাধ করেছেন? কিন্তু তিনি কোনো উত্তর খুঁজে পাননি, ছেলেও পিতার প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি। এই অবস্থায় বৃহস্পতিবার আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন গিয়াস উদ্দিন। তখন তাঁরা যশোর সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে তিনি মারা যান। কথা বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়েন মোমিনুর রহমান। নিজেকে সামলিয়ে নিয়ে বলেন, ছেলের ওপর এই নির্যাতন সইতে না পেরেই তিনি চিরদিনের মতো চলে গেলেন। তাঁরা এই ঘটনার বিচার চান। এস এম সরকার সরকার বলেন, ‘জুতা মারার দৃশ্যটি দেখলেই বুঝতে পারবেন, আমার ওপর কী অত্যাচার করা হয়েছে।’ এর বেশি কিছু তিনি বলতে পারেননি, শুধু কান্নাকাটি করেছেন।

যে কারণে বাড়ছে বজ্রপাত? কারণ ব্যাখ্যা করলেন বিশেষজ্ঞরা

সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বজুড়ে পরিবেশগত পরিবর্তন একটি গুরুত্বপূর্ণ আলোচ্য বিষয়। বিশেষ read more
© দুরন্ত প্রকাশ কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত ২০২০ ©
Theme Customized BY WooHostBD